দুই মাদ্রিদের ড্রতে লাভবান বার্সা!

স্প্যানিশ লা লিগার হাই-ভোল্টেজ ম্যাচে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সাথে ড্র করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। সুয়ারেজের গোলে শুরুতে এগিয়ে গিয়েও একেবারে শেষ মুহূর্তে গোল হজম করে পূর্ণ ৩ পয়েন্ট অর্জন করতে পারলো না দিয়েগো সিমিওনের দল। আর দুই মাদ্রিদ পয়েন্ট ভাগাভাগি করায় লাভবান হয়েছে আরেক শিরোপা প্রত্যাশী দল বার্সেলোনা।

অ্যাটলেটিকোর ঘরের মাঠ ওয়ান্ডা মেট্রোপলিটানোয় রোববার লিগ ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছে। টানা দুই ম্যাচে ড্র করল রিয়াল। শেষ ছয় ম্যাচে তৃতীয়বারের মতো পয়েন্ট হারালো অ্যাটলেটিকো।

ম্যাচের শুরু থেকেই বেশ আক্রমণাত্মক থাকলেও গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারছিল না অ্যাটলেটিকো। রিয়ালের রক্ষণে গিয়ে খেই হারাচ্ছিল বারবার।

১৫তম মিনিটে প্রথম ভালো সুযোগেই এগিয়ে যায় পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা দলটি। প্রতি-আক্রমণে নিজেদের অর্ধ থেকে বল পান মার্কোস ইয়োরেন্তে। নাচোর ট্যাকল এড়িয়ে অনেকটা এগিয়ে খুঁজে নেন লুইস সুয়ারেসকে। বল স্পর্শ না করে দৌড়ের মধ্যেই জায়গা করে নিয়ে চমৎকার ফিনিশিংয়ে জাল খুঁজে নেন উরুগুয়ের এই স্ট্রাইকার।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে রিয়াল। সুযোগও আসে দ্রুত। ৪৮তম মিনিটে কাসেমিরোর ক্রসে দুর্বল হেডে দলকে হতাশ করেন নাচো।

৬১তম মিনিটে ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে যান কারাসকো। কিন্তু ঠিক মতো শট নিতে পারেননি, বল চলে যায় বাইরে। নষ্ট হয় দারুণ একটি সুযোগ।

৮০তম মিনিটে বেনজেমার দুটি চেষ্টা ঠেকিয়ে অ্যাটলেটিকো ত্রাতা ইয়ান ওবলাক। ভিনিসিউসের কাছ থেকে বল পেয়ে পা বাড়িয়ে জাল খুঁজে নিতে চেয়েছিলেন বেনজেমা। সেই চেষ্টা থামিয়ে দেওয়ার পর খুব কাছ থেকে তার বাঁ পায়ের শটও ঠেকিয়ে দেন ওবলাক।

৮৮তম মিনিটে আর পারেননি তিনি। কাসেমিরোকে বল বাড়িয়ে ডি-বক্সে ফাঁকা জায়গা খুঁজে নেন বেনজেমা। আতলেতিকোর সবাই ছুটেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডারের দিকে। তার কাছ থেকে বল পেয়ে বাকিটা অনায়াসে সারেন অরক্ষিত বেনজেমা। আসরে তার মোট গোল হলো ১৩টি।

২৫ ম্যাচে ১৮ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে অ্যাটলেটিকো। ২৬ ম্যাচে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে বার্সেলোনা। সমান ম্যাচে রিয়াল ১৬ জয় ও ৬ ড্রয়ে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে তিনে।